বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:৫৫ পূর্বাহ্ন

নিউইয়র্কের হাসপাতালে দেখতে ভীড়, সাদেক হোসেন খোকার অবস্থার অবনতি

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০১৯
  • ৯৮ বার

নিউইয়র্কের ম্যানহাটনের মেমোরিয়াল স্লোয়ান ক্যাটারিং ক্যান্সার সেন্টারে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন অবিভক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার অবস্থা গুরুতর। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। সেই টকবগে সাদেক হোসেন খোকা এখন আর সেই আগের মতো নেই। তাকে হাসপাতালে দেখলে মনেই হবে যে, এই তিনিই সেই খোকা। উল্লেখ্য, ক্যান্সার চিকিৎসার জন্য ২০১৪ সালের ১৪ মে সপরিবারে নিউইয়র্ক চলে আসেন খোকা। তারপর থেকে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী নিউইয়র্ক সিটির কুইন্সে একটি বাসায় দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছেন এই নেতা।
সাদেক হোসেন খোকার পাশে থাকা তার সহকারী সিদ্দিকুর রহমান মান্না জানান, প্রায় তিন সপ্তাহ আগে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে স্লোয়ান ক্যাটারিং ক্যানসার সেন্টারে ভর্তি করা হয় খোকাকে। গত ২৮ অক্টোবর সোমবার স্বাস্থ্যের আরও অবনতি ঘটলে তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়। এদিকে তাকে দেখতে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র নেতা-কর্মী সহ কমিউনটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ হাসপাতালে ভীড় করছেন।
সাদেক হোসেন খোকার বড় ছেলে, বিএনপির বৈদেশিক বিষয়ক কমিটির সদস্য প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন জানান, গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় গত ১৮ অক্টোবর আব্বাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার থেকে আব্বার শারীরিক অবস্থার অনেক অবনতি হয়েছে। সকলের কাছে দোয়া চাই। তিনি ২/১ দিনের মধ্যেই ঢাকা থেকে নিউইয়র্ক এসে পৌছবেন বলে জানা গেছে।
এদিকে, সাদেক হোসেন খোকার অবস্থার অবনতির সংবাদে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি পরিবারের অনেকেই হাসপাতালে গিয়ে তার খোঁজ-খবর রাখছেন। যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়কমিজানুর রহমান মিল্টন ভূইয়া মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) সকালে জানান, লাগাতার ওষুধ সেবনের ফলে তার মুখে ঘা হয়ে যায়। তিনি খাবার গ্রহণ করতে পারছিলেন না। সেজন্যে কয়েকদিন আগে তাকে ঐ হাসপাতালে ভর্তির পর গত ২৭ অক্টোবর খোকার ফুসফুসে অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। এরপর তাকে চিকিৎসকের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে হাসপাতালেই। তিনি বিএনপি নেতার পরিবারের পক্ষ থেকে সকলের দোয়া চেয়েছেন।
সূত্র জানায়, লাগাতার ওষুধ সেবনের ফলে খোকার মুখে ঘা হয়ে গেছে। তিনি খাবার খেতে পারছিলেন না বিধায় ওই হাসপাতালে ভর্তির পর গত ২৭ অক্টোবর তার ফুসফুসে একটি ছোট অস্ত্রোপচার করা হয়। এদিকে বিএনপি ও খোকার পরিবারের পক্ষ থেকে সুস্থতার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে আবেদন জানান হয়েছে।
অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির উদ্যোগে নিউইয়র্কের জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারে সাদেক হোসেন খোকার সুস্থ্যতা কামনায় দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়াও বৃহস্পতিবার বাদ জোহর ১২.৪৫ মিনিটে হোয়াইট চ্যাপেলের ইস্ট লন্ডন মসজিদে দোয়া হবে বলে জানা গেছে।
ফ্লোরিডা বিএনপির সমন্বয় কমিটির প্রধান মোহাম্মদ দিনাজ খান জানান, সাদেক হোসেন খোকার সুস্থ্যতা কামনায় সেখানে মসজিদে দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।
এদিকে ঢাকা থেকে প্রাপ্ত খবরে জানা গেছে, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, কিডনির ক্যান্সারে আক্রান্ত সাদেক হোসেন খোকা হাসপাতালে মুমূর্ষু অবস্থায় আছেন।
বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু জানান, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকা হাসপাতালে যাওয়ার আগে টেলিফোন আলাপে দেশে ফেরার আকুতি জানিয়েছেন। তিনি দেশে ফিরতে চান।
দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস খোকার প্রতি ভালোবাসা জানিয়ে ফেসবুকে আবেগঘন চিঠি লিখেছেন-‘ফিরে এসো খোকা’। আমি অপেক্ষা করছি।’
অপরদিকে আগামী ১ নভেম্বর শুক্রবার বাদ আসর নয়াপল্টনস্থ বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নীচতলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি’র উদ্যোগে খোকার দ্রুত সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে। এতে উপস্থিত থাকবেন দলীয় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
মজলুম জননেতা মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর অনুসারী ও এক সময়কার বাম ঘরানার রাজনীতিবিদ সাদেক হোসেন খোকা বিএনপিতে যোগ দেন। বিএনপির বর্তমান কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান তিনি। মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম এই সংগঠক অভিবক্ত ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদে ছিলেন। ঢাকার মেয়র হয়ে তিনি রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক মুক্তিযোদ্ধাদের নামে নামকরণ করেন। বিএনপির ক্ষমতায় থাকাকালে তিনি একাধিকবার মন্ত্রিসভার সদস্যও হন।
রাজধানী ঢাকার বনানী সুপার মার্কেটের কার পার্কিংয়ের ইজারা দুর্নীতির মামলায় ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকাসহ ৪ জনের ১০ বছর বিনাশ্রম কারাদন্ড হয়। গত বছরের ২৮ নভেম্বর ঢাকা বিভাগীয় স্পেশাল জজ মিজানুর রহমান খান এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার পর আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়।
খোকাকে নিয়ে মির্জা আব্বাসের আবেগঘন স্ট্যাটাস
বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারে আক্রান্ত। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। গত দুইদিন ধরে তার শরীরের অবস্থার আরো অবনতি হয়েছে। এমন খবর শুনে দলের নেতাকর্মীরা বিমর্ষ। এরইমধ্যে খোকার অসুস্থতা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এক আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন-
‘প্রিয় খোকা এইমাত্র আমি জানতে পারলাম যে তোমার শরীর খুব খারাপ। তুমি হাসপাতালে শয্যাশায়ী। জানার পর থেকে আমার মানসিক অবস্থা যে কতটা খারাপ, এই কথাটুকু কারো সঙ্গে শেয়ার করবো সেই মানুষটা পর্যন্ত আমার নেই।
তুমি আর আমি একসঙ্গে রাজনীতি করেছি। অনেক স্মৃতি আমার চোখের সামনে এই মুহুর্তে ভাসছে। তোমার আর আমার দীর্ঘ এই পথচলায় কেউ কেউ তাদের ব্যক্তি স্বার্থে তোমার আর আমার মাঝে একটা দুরত্ব তৈরি করে রেখেছিল। তবে তুমি আর আমি কেউই সেই দুরত্ব রয়েছে বলে কখনোই মনে করিনি।
আমি জানিনা, তোমার সাথে আমার আর দেখা হবে কিনা। আমার এই লিখাটি তোমার চোখে পরবে কি-না বা তুমি দেখবে কি-না তাও আমি জানি না। তবে বিশ্বাস করো তোমার শারীরিক অসুস্থতার কথা জানার পর থেকেই বুকের ভেতরটা কেন যেনো ভেঙ্গে আসছে। আমি বার বার অশ্রুসিক্ত হচ্ছি। মহান আল্লাহ্ তায়ালার কাছে দুহাত তুলে তোমার জন্য এই বিশ্বাস নিয়ে দোয়া করছি। তিনি অবশ্যই তোমাকে সুস্থ করে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে আনবেন।
তুমি আর আমি কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে, বুকে বুক মিলিয়ে রাজনীতির মাঠে কাজ করে যাব। না হয় সেই আগের মতোই স্বার্থপর কোনো মানুষদের জন্য আব্বাস আর খোকা বাইরে বাইরে দুরত্বের সেই অভিনয়টা করে যাবে, আর ভেতরে থাকবে দুজনের প্রতি দুজনের অন্তর নিংড়ানো ভালোবাসা। আল্লাহ্ তোমার সুস্থতা দান করুক। তুমি ফিরে এসো খোকা, তুমি ফিরে এসো। আমি অপেক্ষায় থাকবো।’

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com