শনিবার, ২১ নভেম্বর ২০২০, ০৯:১৪ অপরাহ্ন

নিউইয়র্কে বাংলাদেশীদের ট্রাম্পের পক্ষে নির্বাচনী-শোভাযাত্রা ও ফ্লায়ার বিতরণ অনুষ্ঠিত

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ১০ বার
মিনি বাংলাদেশ জ্যাকসনহাইটসে ‘বিডিআমরা’র ট্রাম্প-নির্বাচনী-শোভাযাত্রা ও ফ্লায়ার বিতরণ অনুষ্ঠিত। 
যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন ঐতিহাসিক নির্বাচন-২০২০ তে রিপাবলিকান পার্টির সমর্থনে বাংলাদেশী-আমেরিকান রিপাবলিকানরা  অন্যান্য অভিবাসীদের চেয়ে বহুগুণ এগিয়ে গেলেন। ত্যাগী বাংলাদশী-আমেরিকান রিপাবলিকানদের নিয়ে ইতোমধ্যেই গঠিত হয়েছে ‘বাংলাদেশী-আমেরিকান রিপাবলিকান এলায়েন্স বা ‘বিডিআমরা’। নির্বাচনের দিন ৩ নভেম্বরের আগে শেষ মূহুর্তেও বিবিধ প্রচারণা কার্যক্রম চলছে বেশ প্রবল গতিতে। যার ধারাবাহিকতায় গত শনিবার, ২৪শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যায় ‘নিউইয়র্ক ফর ট্রাম্প-২০২০’ ব্যানার সহ একটি নির্বাচনী শোভাযাতরা ও ‘কেন আমরা ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আবারো নির্বাচিত করবো’ শিরোনামের ছাঁপানো ফ্লায়ার এলায়েন্সের সদস্যরা মিনি বাংলাদেশ জ্যাকসনহাইটসে বিতরণ করেন। রিপাবলিকান পার্টির সমর্থনে এর আগে কাউকে এমন প্রচারাভিযান জ্যাকসনহাইটসে চালাতে দেখা যায়নি। জ্যাকসনহাইটসের ৩৭ এভিন্যু ও ব্রাডওয়ে বরাবর ৭২/৭৩/৭৪ ষ্ট্রিট গুলো প্রদক্ষিণ ও ফ্লায়ার বিতরণ কালে উৎসুক জনতার কাছ থেকে বিপুল সাঁড়া পরিলক্ষিত হয়েছে। সংগঠনের তরুণ চীফ কোঅর্ডিনেটর মোশতাক চৌধুরীর নেতৃত্বে পরিচালিত এই ক্যাম্পেইন রেলিটি চলা কালীন সময়ে তারা উৎসুক জনতার বিভিন্ন প্রশ্নের আশাব্যন্জক উত্তর প্রদান পূর্বক সবাইকে এই বলে আশ্বস্ত করেন যে, ২য় বারের বিজয়ী ট্রাম্প হবেন সম্পূর্ণ এক ভিন্ন প্রেসিডেন্ট। বিডিআমরা মনে করে যে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অবশ্যই এমনেষ্টি ও অভিবাসন আইনকে আরোও শিথিল, সহজলভ্য এবং সাবলিল করে তুলবেন, যাতে করে কেউই যেনো কোন প্রকার ক্ষতিগ্রস্ত না হোন। তারা উল্লেখ করেন, ট্রাম্প হবেন আমেরিকার শ্রেষ্ঠ প্রেসিডেন্ট। তাই কোন প্রকার গুজবে কান না দিয়ে সকলকে আসন্ন নির্বাচনে ট্রাম্পকেই  ভোট দিতে অনুরোধ করেন। তারা সবাইকে স্মরণ করিয়ে দেন যে, আমেরিকায় অবৈধদের এ্যামনেষ্টি কেবল রিপাবলিকানরাই দিয়েছে। বিশ্ব থেকে বৈধ পথে আমেরিকায় পাড়ি দেবার পথ লটারী ভিসা এই রিপাবলিকানদেরই অবদান। তারা দু:খ করে বলেন, যে বাইডেন মানুষের বাহবা নেয়ার জন্য আজ এমনেষ্টির কথা বলছেন, কোথায় ছিলেন তিনি ওবামার ৮ বছর? লিবিয়ার মত একটি সুন্দর দেশকে ধ্বংস লীলায় পরিণত করা ছাড়া তাদের আর কোন সফলতাই নেই। তাই, এই মূহূর্তে শুধু আমেরিকাই নয়, সারা বিশ্ব আমেরিকার দিকে চেয়ে আছে আবারোও ট্রাম্পকে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি দেখার জন্য। কারন ট্রাম্প আমেরিকার ইকোনমি উন্নত করার পাশাপাশি রকেটম্যানের সাথে আলোচনা চালিয়ে সম্ভাব্য একটি বিশ্বযুদ্ধ বন্ধ করেছেন। ইসরায়েল ও মধ্যপ্রচ্যের মধ্যে শান্তি আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন।  পরবর্তী কার্যক্রমের মধ্যে ইলেকশন ডে, ৩রা নভেম্বরের আগেই জামাইকা, ওজনপার্ক, ব্রন্স ও ব্রুকলীনের বাংলাদেশী কম্যিউনিটিতেও অনুরূপ কার্যক্রমের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। খসরুল আলম, আহবায়ক, নির্বাচনী প্রচারণা কমিটি,  বিডিআমরা’র উদ্যোগে আয়োজিত এই নির্বাচনী শোভা যাত্রায় তদীয় সহ অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ আলতাফ হোসেন, চীফ কোঅরডিনেটর মোস্তাক চৌধুরী, ইন্টারফেইথ-কাম মিডিয়া কোঅর্ডিনেটর ইমাম কাজী কায়্যূম, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক উপদেষ্টা মুনির হোসেন ও মাহাবুবুল আলম, সদস্য মোঃ আকরামুজ্জামান, এ্যাডঃ আব্দুল হাই কাইয়ুম, মোঃ সাদেক হোসেন, মশিউর রহমান, কাজল মাহমুদ, সনাতন শীল, প্রিয়তোষ দে প্রমুখ সহ ডজন তিনেক নেতা কর্মী। ঘন্টা দু’এক পরিচালিত এ কার্যক্রম শেষে স্থানীয় কাবাবিশ আউটডোরের ডাইনিং ডিনার শেষে সপ্তাহ ব্যাপী প্রোগ্রামের ১ম দিনের এই সফল কর্মসূচীর শুভ সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com