শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৭:৫১ অপরাহ্ন

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এগিয়ে রাজাপাকসে

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৩৯ বার

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে গতকাল শনিবার। আজ চলছে গণনা। তাতে এগিয়ে রয়েছেন সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী গোটাবায়া রাজাপাকসে (৭০)।

শ্রীলঙ্কান নির্বাচন কমিশনের তথ্যমতে, গণনা শেষ হওয়া প্রায় পাঁচ লাখ ভোটের মধ্যে তিনি পেয়েছেন ৫২ দশমিক ৮৭ শতাংশ।আর তার প্রধান প্রতিপক্ষ বর্তমান আবাসনবিষয়ক মন্ত্রী সাজিথ প্রেমাদাসা পেয়েছেন ৩৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ।

দেশটির বামপন্থী নেতা কুমারা দিসানায়ক ৪ দশমিক ৬৯ শতাংশ পেয়ে তৃতীয় অবস্থানে আছেন। এবার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়েছেন আরও ৩২ জন।

আজ রোববার সকালে নির্বাচনের প্রাথমিক ফলাফলে এমনটিই দেখা গেছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক একাধিক সংবাদমাধ্যম।

খবরে বলা হয়েছে, এপ্রিলে ইস্টার সানডে পরের দিন কয়েকটি গির্জা ও হোটেলে একযোগে চালানো আত্মঘাতী হামলায় ২৫০ জন নিহত হওয়ার কয়েক মাস পর এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো। ওই হামলার জেরে দেশটির পর্যটন শিল্প ও বিনিয়োগে স্থবিরতা নেমে এসেছে। এতে ১৫ বছরেরও বেশি সময়ের মধ্যে সবচেয়ে কঠিন অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে পড়েছে শ্রীলঙ্কা।

এই পরিস্থিতিতে গতকাল শনিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে লাখ লাখ শ্রীলঙ্কান তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। নতুন প্রেসিডেন্ট এই সংকট থেকে দেশকে বের করে নিয়ে আসবেন বলে আশা তাদের।

১০ বছর আগে গোটবায়া রাজাপাকসের ভাই মাহিন্দা রাজাপাকসে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট ছিলেন। ওই সময় শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষামন্ত্রী ছিলেন গোটাবায়া। তাদের সময়েই তামিল বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সামরিক পরাজয় ঘটার মধ্যে দিয়ে বহু বছর ধরে চলা রক্তাক্ত গৃহযুদ্ধের অবসান হয়।

তামিল বিদ্রোহীদের পরাজিত করায় সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেন গোটাবায়া রাজাপাকসে। মহিন্দা রাজাপাকসে ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর গোটাবায়া তাদের দল ফ্রিডম পার্টির প্রধান হিসেবে আছেন। নির্বাচনী প্রচারণায় তিনি শক্তিশালী নেতৃত্বের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

প্রাথমিক ফলাফলে দেখা গেছে, রাজাপাকসে সিংহলিদের প্রাধান্য থাকা দক্ষিণাঞ্চলে ও পোস্টাল ভোটে এগিয়ে আছেন।

অপরদিকে তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী শ্রীলঙ্কার নিহত সাবেক প্রেসিডেন্ট রানাসিংহে প্রেমদাসার ছেলে ইউনাইটেড ন্যাশনাল পার্টির (ইউএনপি) নেতা সাজিথ তামিল অধ্যুষিত উত্তরাঞ্চলে এগিয়ে আছেন।

রোববার রাতের মধ্যেই নির্বাচনে জয়-পরাজয়ের বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে যাবে বলে মনে করছে দেশটির নির্বাচন কমিশন। এরপর নতুন প্রেসিডেন্ট কয়েক দিনের মধ্যেই শপথ গ্রহণ করবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com