রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৪:৪৭ অপরাহ্ন

ভারতে প্রতিদিন গড়ে ৮৭ ধর্ষণ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১১৪ বার

ভারতে ২০১৯ সালে প্রতিদিন গড়ে ৮৭টি করে ধর্ষণের মামলা রেকর্ড হয়েছে। সবমিলিয়ে গোটা ভারতে নারীদের বিরুদ্ধে নথিভুক্ত অপরাধের সংখ্যা ছিল ৪,০৫,৮৬১টি। ২০১৮ সালের নিরিখে বিচার করলে নারীদের বিরুদ্ধে অপরাধের ঘটনা ৭ শতাংশের বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। মঙ্গলবার কেন্দ্রের প্রকাশিত পরিসংখ্যানে এই তথ্য সামনে এসেছে। ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো বা জাতীয় অপরাধ রেকর্ডস ব্যুরোর ডেটা অনুযায়ী, ২০১৮ সালে মেয়েদের বিরুদ্ধে অপরাধের ৩ লাখ ৭৮ হাজার ২৩৬টি মামলা হয়েছিল।

এদিন ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর পেশ করা রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১৯ সালে গোটা ভারতে ৩২,০৩৩টি ধর্ষণের মামলা হয়েছে। শতাংশের নিরিখে বিগত বছরে নারীদের বিরুদ্ধে যত অপরাধের ঘটনা ঘটেছে, তার ৭.৩ শতাংশ ধর্ষণ মামলা। ২০১৮ সালে ভারতে ধর্ষণের মামলার সংখ্যা ছিল ৩৩,৩৫৬। ২০১৭ সালে নথিভুক্ত ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছিল ৩২, ৫৫৯টি। জাতীয় অপরাধ রেকর্ডস ব্যুরোর এই ডেটায় পরিষ্কার, মেয়েদের বিরুদ্ধে অপরাধের ঘটনা উল্লেখযোগ্য হারে বাড়লেও ভারতে ধর্ষণের মামলা তার আগের দু’টি বছরের তুলনায় কমেছে।

২০১৯ সালে উল্লিখিত মামলার বেশির ভাগই নথিভুক্ত হয়েছে ভারতীয় দণ্ডবিধি (আইপিসি)-র আওতায়। এর মধ্যে শ্বশুরবাড়িতে বধূনির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে ৩০.৯ শতাংশ। অন্যান্য ক্ষেত্রে নারীদের উপর নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে ২১.৮ শতাংশ। মহিলা অপহরণের ঘটনা ঘটেছে ১৭.৯ শতাংশ। প্রতি ১ লাখ নারী জনসংখ্যায় ২০১৯ সালে অপরাধের হার ৬২.৪ শতাংশ। ২০১৮ সালে ছিল ৫৮.৮ শতাংশ।

শুধু নারী নয়, এনসিআরবির ‘ক্রাইমস ইন ইন্ডিয়া-২০১৯’ রিপোর্ট অনুযায়ী, শিশুদের বিরুদ্ধে অপরাধের ঘটনাও ভারতে বেড়েছে। ২০১৯ সালে শিশুদের বিরুদ্ধে ১.৪৮ লাখ অপরাধের মামলা নথিভুক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৪৬.৬ শতাংশ ঘটনাই হলো অপহরণের অভিযোগ। ৩৫.৩ শতাংশ ক্ষেত্রে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ। ২০১৮ সালের সঙ্গে তুলনা করলে, ২০১৯-এ শিশুদের বিরুদ্ধে অপরাধের ঘটনা ৪.৫ শতাংশ বেড়েছে।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আওতায় কাজ করে ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো। গোটা ভারত থেকে বিভিন্ন অপরাধের তথ্য সংগ্রহ করে, তা কাটাছেঁড়া করে প্রতিবছরের রেকর্ড সংগ্রহে রাখে এনসিআরবি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তরফে এদিন উল্লেখ করা হয়, পশ্চিমবঙ্গের কাছ থেকে ২০১৯ সালের অপরাধ সংক্রান্ত তথ্য-পরিসংখ্যান কেন্দ্র পায়নি।
সূত্র : এই সময়

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com