বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৫৭ অপরাহ্ন

হংকংয়ে শপিং মলে হামলা, কামড়ে ছিঁড়ে নেওয়া হল কাউন্সিলরের কান

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৫ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১১৭ বার

সরকার বিরোধী বিক্ষোভে উত্তপ্ত হংকংয়ে শপিং মলের ভিতরে জনতা-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধ। ছুরি নিয়ে হামলা চালাল এক ব্যক্তি। আক্রমণের জেরে স্থানীয় কাউন্সিলররের কান কামড়ে ছিঁড়ে নেওয়া হল।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ টিয়ার গ্যাসের শেল ছোঁড়ে, লাঠিচার্জও হয়। দিনেদুপুরের এমন কাণ্ডের জেরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে তাইকু শিং শহরে।

ঘটনার সূত্রপাত রোববার। তাইকু শিং শহরের সিটি প্লাজা নামে একটি শপিং মলে আচমকাই ছুরি নিয়ে হামলা চালায় এক ব্যক্তি। মলের একটি রেস্তরাঁয় ভাঙচুর করা হয়। চলন্ত সিঁড়িতে ওঠার মুখে চলে হামলা।

সেসময়ই শপিং মলে ঢুকেছিলেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি তথা ডেমোক্র্যাটিক পার্টির ডিস্ট্রিক্ট কাউন্সিলর অ্যান্ড্রু চিউ। তাঁর কান কামড়ে ছিঁড়ে ফেলা হয়। এমন অতর্কিত হামলার মুখে পড়ে চিউ গুরুতর আহত। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকেন তিনি। রক্তমাখা হাতেই ছেঁড়া কান নিয়ে তিনি কার্যত সাহায্য প্রার্থনা করতে থাকেন।

ডেমোক্র্যাটিক পার্টির এক সদস্য জানিয়েছেন, ছুরির আঘাতে আরও অনেকে আহত হয়েছেন। তাদের আঘাত আরও গুরুতর। পরে জানা গেছে, ছুরি নিয়ে হামলা চালানো ব্যক্তিকে ধরে পথচলতি মানুষজনই গণপিটুনি দিয়েছেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়ছেন, একটি সাদা টি-শার্ট পরে মলে ঢুকেছিল ওই ব্যক্তি। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

বেশ কয়েকমাস ধরে হংকংয়ে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য চলছে গণআন্দোলন। চীনপন্থী শাসক ক্যারি ল্যামকে উৎখাত করতে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছে আন্দোলন। এই পরিস্থিতিতে গণতন্ত্রপন্থী নেতা জোশুয়া ওয়াংয়ের বিরুদ্ধে কাউন্সিল ভোটে দাঁড়ানোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করায় সরকারের প্রতি বিদ্বেষ আরও বেড়েছে। পুলিশের বিরুদ্ধেও ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন আন্দোলনকারীরা। ‘ব্ল্যাক পুলিশ’ স্লোগান উঠছে। রোববার সিটি প্লাজা শপিং মলেও তেমনই পরিস্থিতি তৈরি হয়। পুলিশ সঙ্গে সঙ্গে গিয়ে বিক্ষোভ দমনে টিয়ার গ্যাস, গুলি ছোঁড়ে। ছড়ানো হয় লঙ্কাগুঁড়োও।

প্রত্যক্ষদর্শী বছর চব্বিশের জুলি জানিয়েছেন, ‘পুলিশ এসে মল থেকে আমাদের সবাইকে বের করে দিল। এটা তো অশান্তি দমনের কোনও উপায় হতে পারে না।’

আরেক বাসিন্দা ডেসমন্ড ফগের কথায়, ‘আমরা সকলে স্থানীয় বাসিন্দা। এখানে কেনাকাটা করতে এসেছিলাম। মলের বাইরে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ চলছিল। কিন্তু পুলিশ যা করল, তা নিন্দনীয়।’

এঘটনায় মলের অনেকটাই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আগামী ২৪ নভেম্বর এখানে ডিস্ট্রিক্ট কাউন্সিলের ভোট। তার আগে তাইকু শিং শহরের এমন ঘটনা নাড়া দিয়ে গেল প্রায় গোটা দেশকে। সংবাদপ্রতিদিনডটইন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com