শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১১:০৭ অপরাহ্ন

আগাম ভোটের ময়নাতদন্ত

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৪ নভেম্বর, ২০২০
  • ৮৭ বার

যুক্তরাষ্ট্রের শতবর্ষের ইতিহাসে এবারই সর্বোচ্চ ৯ কোটি ৮০ লাখ আগাম ভোট পড়েছে। আগের নির্বাচনে মোট ভোটই যেখানে পড়েছিল ১৪ কোটির কম। ফলে এবার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে যে আগাম ভোটের ভূমিকা অনেক বেশি, সেটি সহজেই অনুমেয়। এসব ভোটের তথ্য বিশ্লেষণ করে ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান বলেছে, হাওয়া বাইডেনের পালে। তার পরও ‘তিনটি যদি’র কথা বলেছেন বিশ্লেষক মোনা চালাবি।

প্রতিবেদনের শুরুতেই চালাবি অবশ্য এও লিখেছেন, যদি জনমত জরিপ সঠিক হয়, তা হলে জো বাইডেন হবেন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট। তবে চার বছর আগে, জরিপ ভুয়া প্রমাণিত হয়েছিল। সুতরাং যদি দেশটির রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ সম্পর্কে আঁচ করতে হয়, তা হলে জরিপের চেয়ে সঠিক তথ্যের দ্বারস্থ হওয়াই যৌক্তিক। প্রয়োজন কিছু ভোটার গোষ্ঠীর দিকে খেয়াল করা, যাদের রায়ে জয়-পরাজয় নির্ধারণ হতে পারে।

তা হলে আগাম ভোটের তথ্যই সবচেয়ে নিরেট সত্য দেখতে সাহায্য করতে পারে। যেসব ভোট এরই মধ্যে পড়ে গেছে এবং গণনা করা হয়েছে, সেই তথ্য জরিপের চেয়ে অনেক স্বচ্ছ ধারণা দিতে পারে, এতে কোনো সন্দেহ নেই।

চালাবি লিখেছেন- টেক্সাসে এবার রেকর্ড পরিমাণ আগাম ভোট পড়েছে। গতবার এই রাজ্যে মোট যত ভোট পড়েছিল, এবার আগাম ভোটই পড়েছে তার ১০৮ শতাংশ। এসব ভোটারের দলীয় পরিচিতি থেকে একটা আভাস মিলবে বৈকি। সেই তথ্য থেকেই জানা যাচ্ছে, আগাম ভোটে ডেমোক্র্যাটরাই এগিয়ে আছেন। শুধু টেক্সাস নয়, দলীয় পরিচিতির তথ্য পাওয়া যায় এমন ২০ রাজ্যের আগাম ভোটারদের ওপর বিশ্লেষণ করে এ কথা বলা হচ্ছে। এই ২০ রাজ্যে আগাম ভোটারদের প্রায় অর্ধেকই (৪৫ শতাংশ) ডেমোক্র্যাটদলীয় সমর্থক। আর রিপাবলিকান ভোটার ৩১ শতাংশ। অবশ্য আগে থেকেই ডেমোক্র্যাটরা আগাম ভোট দেওয়ার ব্যাপারে এগিয়ে থাকেন। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি।

এ ছাড়া চালাবি লিখেছেন- গতবার ভোট দেওয়ার উপযোগী ছিলেন কিন্তু দেননি, তবে এবার সেই ধরনের প্রায় আড়াই কোটি মানুষ আগাম ভোট দিয়ে ফেলেছেন। এবং সম্পূর্ণ নতুন ভোটার হিসেবে ৮০ লাখ তরুণ আগাম ভোট দিয়েছেন। মানে, আগাম ভোটে এবার ভোটবিমুখীরাও সরব-সক্রিয়। তারা বদলে দিতে পারেন সব হিসাব-নিকাশ। ট্রাম্প হতে পারেন গদিচ্যুত, মসনদে বসতে পারেন নতুন প্রেসিডেন্ট- জো বাইডেন।

তবে তিনটি যদির কথা বলেছেন চালাবি- এক. কোভিডের কারণে যদি না ডেমোক্র্যাটরা ঘরেই বসে থাকেন; দুই. যদি না দেশজুড়ে ভোটার নিপীড়ন চলে; এবং তিন. জরিপ যদি ষোলো সালের চেয়েও নাটকীয়ভাবে আরও বেশি ভুল প্রমাণিত না হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com