সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৮:০৩ পূর্বাহ্ন

বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ আজ: রাজশাহী থেকে সব বাস চলাচল বন্ধ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২ মার্চ, ২০২১
  • ৪৫ বার

বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় সমাবেশ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা আজ মঙ্গলবার। তবে বিএনপির এই সমাবেশ ঘিরে ‘হামলা-নাশকতার আশঙ্কায়’ গতকাল সোমবার সকাল থেকেই রাজশাহী থেকে সব রুটের বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। কোনো ধরনের পূর্ব ঘোষণা ছাড়া আকস্মিক বাস বন্ধ করে দেওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।

রাজশাহীর পরিবহন মালিক ও শ্রমিক নেতাদের দাবি, বাস চলাচল করলে হামলার আশঙ্কা আছে। তাই চালক-শ্রমিকদের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে তারা বাস চলাচল আপাতত বন্ধ করে দিয়েছেন। পরিস্থিতি বুঝে পরে তারা আবারও বাস চলাচলের সিদ্ধান্ত নেবেন।

রাজশাহী বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মতিউল হক টিটো জানান, মঙ্গলবার রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ ঘিরে তারা সড়কে বিশৃঙ্খলা ও যানবাহনে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা করছেন। এ কারণে তারা সোমবার সকাল থেকে বাস চলাচল বন্ধ রেখেছেন।

তবে রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরীর দাবি, বগুড়ায় তাদের এক শ্রমিককে মারধর করা হয়েছে। মারধরকারীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে। এদিকে রাজশাহী থেকে হঠাৎ বাস চলাচল বন্ধের কারণে দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা। তারা অনেকেই কাউন্টারে এসে ফিরে যাচ্ছেন। এ ছাড়া বিকল্প হিসেবে অন্য যানবাহনে নিজ নিজ গন্তব্যে রওনা দিচ্ছেন।

রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমাদের বিভাগীয় সমাবেশের অনুমতি ও স্থান নির্ধারণ করে দেওয়া হয়নি। এর ওপর হঠাৎ রাজশাহী থেকে ঢাকাসহ সব রুটের বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এর আগেও সমাবেশের পূর্ব মুহূর্তে এ রকম করা হয়েছে। এর কারণ বিভাগীয় সমাবেশে যেন মানুষ না আসতে পারে।’ এটি বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ নস্যাৎ করার অপচেষ্টা বলেও দাবি করেন সাবেক সিটি মেয়র বুলবুল।

নওগাঁ-রাজশাহী রুটে বাস চলাচল বন্ধ

নওগাঁ প্রতিনিধি জানান, রাজশাহী মহানগরীতে বিএনপির সমাবেশ ঘিরে ‘হামলা-ভাঙচুরের আশঙ্কায়’ নওগাঁ থেকে রাজশাহী রুটে সব ধরনের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। গতকাল দুপুর থেকে কোনো পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই এসব বাস বন্ধ করে দেয় নওগাঁ জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপ। এদিকে হঠাৎ দূরপাল্লার বাস বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা।

নওগাঁ জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম বলেন, মঙ্গলবার রাজশাহী মহানগরীতে রাজনৈতিক সমাবেশ ডেকেছে বিএনপি। এরই মধ্যে বিভিন্ন জায়গায় গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। তাই বড় ধরনের অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা এড়াতে ও ক্ষতি থেকে বাঁচতে আগে থেকেই নওগাঁ থেকে রাজশাহী রুটের সব ধরনের বাস চলাচল বন্ধ রাখার এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এতে ভোগান্তিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের যাত্রীরা

এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই সোমবার সকাল থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের অভ্যন্তরীণ ও দূরপাল্লার সব ধরনের বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে বাস মালিক সমিতি। এতে গন্তব্যস্থলে যেতে না পারায় ভোগান্তিতে পড়তে দেখা গেছে যাত্রীদের। ফলে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে অটোরিকশা, মিশুক ও রিকশায় করে ভেঙে ভেঙে যাত্রীদের গন্তব্যস্থলে যেতে দেখা গেছে।

জানা যায়, সোমবার সকাল ৮টার দিকে শহরের বিশ্বরোড মোড়ে চেক পোস্ট বসায় পুলিশ। এরপরই পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায় বাস চলাচল। তবে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান জানান, ‘পুলিশের বাধায় বাস চলাচল বন্ধ হয়নি। নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে পুলিশ জেলার বিভিন্ন এলাকায় নিয়মিত চেকপোস্ট বসিয়েছে।’

জেলা বাস মালিক সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট এএফএম লুৎফর রহমান ফিরোজ জানান, মঙ্গলবার পর্যন্ত বাস চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যোগদান বাধাগ্রস্ত করতেই বাস চলাচল বন্ধ করা হয়েছে বলে মনে করছেন বিএনপির একাধিক নেতা। যদিও এ নিয়ে সরাসরি কথা বলতে রাজি হননি কেউই।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com