শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:৪৩ অপরাহ্ন

ব্রিটেনের নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন মুসলিম ভোটাররা

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ২০৪ বার

ব্রিটেনে মুসলিমরা সংখ্যালঘু হলেও সাধারণ নির্বাচনে মুসলিম ভোটাররাই ব্যালট বাক্সে বড় প্রভাব ফেলতে পারে বলে একটি নতুন প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। ব্রিটেনের মুসলিম কাউন্সিল ১৮টি নির্বাচনক্ষেত্র চিহ্নিত করেছে যেখানে মুসলিম ভোটাররা বেশি প্রভাব ফেলতে পারে।

দেশটিতে ইসলামোফোবিয়ার উত্থান, ব্রেক্সিটকে ঘিরে অনিশ্চয়তা ও এর প্রভাব সত্ত্বেও ১২ ডিসেম্বরের সাধারণ নির্বাচনের ফলাফলের ওপর ব্রিটিশ মুসলমানরা কেবল তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমেই গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলতে পারে। দেশটিতে মুসলিম জনসংখ্যা মাত্র ৫ শতাংশ হওয়া সত্ত্বেও মুসলিম কাউন্সিল অফ ব্রিটেনের (এমসিবি) প্রকাশিত একটি তালিকা অনুসারে ৩১টি প্রান্তিক আসন রয়েছে যেখানে ‘উচ্চ’ বা ‘মাঝারি’ মাত্রায় মুসলিম ভোটারদের প্রভাব পড়তে পারে। ৩১টি আসনের মধ্যে ১৮টি নির্বাচনক্ষেত্র চিহ্নিত করেছে যেখানে মুসলিম ভোটারদের উচ্চ প্রভাব থাকতে পারে এবং ১৩টিতে মুসলিম ভোটারদের মাঝারি প্রভাব পড়তে পারে।

উচ্চ-প্রভাব পড়বে এমন অঞ্চলের তালিকার মধ্যে শীর্ষে রয়েছে- কেনসিংটন, ডডলি নর্থ এবং রিচমন্ড পার্ক। উচ্চ-প্রভাবিত আসনগুলোতে মুসলিম ভোটারদের অনুপাতের আলোকে বর্তমান বিজয়ীর প্রাপ্ত ভোটের ব্যবধানটি সামান্য। কেনসিংটনে লেবার প্রার্থী এমা ডেন্ট কোড ২০১৭ সালের নির্বাচনে মাত্র ২০ ভোটের ব্যবধানে জিতেছিলেন। ডডলি নর্থ ও রিচমন্ড পার্ক উভয় নির্বাচনী এলাকায় যথাক্রমে ২২ ও ৪৫ ভোটের ভোটের ব্যবধান ছিল গত নির্বাচনে। মুসলমানরা এ আসনে উচ্চ-প্রভাব ফেলতে পারে।

যুক্তরাজ্যের মুসলমানদের প্রধান প্রতিনিধি সংস্থা ‘মুসলিম কাউন্সিল অব ব্রিটেনস’ নির্দলীয় থাকবে। এমসিবি হলো ব্রিটেনের বৃহত্তম ও সর্বাধিক বৈচিত্র্যময় মুসলিম সংস্থা, যার অধীনে ৫০০ এরও বেশি অনুমোদিত, জাতীয়, আঞ্চলিক ও স্থানীয় সংস্থাসহ মসজিদ, দাতব্য সংস্থা ও স্কুল রয়েছে। এটি কোনো রাজনৈতিক দল বা সম্ভাব্য সংসদীয় প্রার্থীকে সমর্থন করে না।

এমসিবির ৩১টি প্রান্তিক আসনের একটি তালিকা প্রকাশের পর ব্রিটেন মুসলিম কাউন্সিলের সেক্রেটারি জেনারেলে হারুন খান বলেছেন, আমাদের সমাজে সক্রিয় অংশগ্রহণকারী হিসেবে মুসলমানরা তাদের সামগ্রিক বৈচিত্র্যে আসন্ন নির্বাচনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেন। আমরা আশা করছি, নির্বাচনে মুসলিম প্রার্থীদের অংশগ্রহণের বিষয়টি সারা দেশের মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে পৌঁছে যাবে এবং তারা গুরুত্ব দেবে। নির্বাচনে মুসলিম ভোটারদের ‘উচ্চ’ বা ‘মাঝারি’ মানের প্রভাব থাকতে পারে। যে ৩১টি আসন মুসলিমদের দখলে আসতে পারে সেগুলোর ১৪ করে লেবার ও কনজারভেটিভের এবং বাকি তিনটি এসএনপির।

ইহুদিবিদ্বেষের কারণে লেবার পার্টিকে ইহুদিদের ভোট টানতে সমস্যায় পড়তে হবে। কনজারভেটিভ পার্টির ভেতরে ইসলামবিদ্বেষের অভিযোগের কারণে তাদেরও মুসলিমদের ভোট পেতে অসুবিধা হবে। যদিও ইসলাম-বিদ্বেষের জন্য ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির নেতা ও প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন। চলতি নির্বাচনে আটটি দল অংশ নিচ্ছে। দলীয় প্রার্থী ছাড়াও নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ২০৫ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী। বর্তমানে ব্রিটেনে মুসলিমদের সংখ্যা প্রায় ৩০ লাখ। এমতাবস্থায় ৩১ আসনে তাদের বিজয়ী হওয়ার পূর্বাভাস রাজনীতিতে মুসলমানদের শক্ত অবস্থানের ইঙ্গিত।
সূত্র : আরব নিউজ ও দ্য গার্ডিয়ান

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com