শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:২২ অপরাহ্ন

রুক্ষদিনে কোমল ঠোঁট

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৬ বার

ঠাণ্ডায় নাক বন্ধ হয়ে গেলে নিঃশ্বাস নিতে হয় মুখ দিয়ে। এতে আরও দ্রুত ঠোঁট ফেটে যায়। ফাটা ঠোঁটে হাসিও ফুটে ওঠে না আবার যন্ত্রণা বেশি হয়ে থাকে। ঠোঁটের গড়ন মোটামুটি চার ধরনের পুরু, পাতলা, চওড়া ঠোঁট ও ছোট। যাদের ত্বক বেশি রুক্ষ, তাদের ঠোঁট ফেটে যাওয়ার পাশাপাশি চামড়াও উঠতে থাকে। ফলে স্বাভাবিকভাবে কিছু খেতে গেলেই জ্বলতে শুরু করে। এ জন্য এ সময়ে প্রয়োজন বাড়তি যত্ন ও সঠিক প্রসাধনী।

এই শীতে বাসায় থাকুন কিংবা বাইরে, সঙ্গে রাখতে পারেন লিপবাম। এটি দীর্ঘ সময় পর্যন্ত আপনার ঠোঁটে স্থায়ী থাকবে এবং গোলাপি আভা ফিরিয়ে আনবে। অন্যদিকে যারা লিপস্টিক ব্যবহার করেন, তারা লিপস্টিকের ওপর হালকা করে লিপবাম দিয়ে রাখতে পারেন। এতে ঠোঁট টেনে ফাটবে না এবং লিপস্টিকও নষ্ট হবে না।

শীতের প্রসাধনীতে আরেক সঙ্গী হচ্ছে গ্লিসারিন। অনেকেই শীত এলে সেটি হাত-পায়ে ব্যবহার করেন। তবে যাদের ঠোঁট বেশি ফেটে যায়, ডেড সেল বেশি হয় তারা রাতে ঘুমানোর আগে কিংবা বাসায় থাকলে ঠোঁটে গ্লিসারিন দিতে পারেন। বাইরে থাকলে গ্লিসারিন না দেওয়াই ভালো। কারণ এর ঘনত্ব একটু বেশি। বাইরের বাতাসে ধুলা তখন ঠোঁটে আটকে যেতে পারে। তাই বাসায় দিনে দুইবেলা গ্লিসারিন দিতে পারেন। আপনি প্রয়োজন মনে করলে দিনে একবেলা গ্লিসারিনের সঙ্গে একটু মধু, দুই ফোঁটা লেবুর রস ও পানি মিশিয়ে ১০-১৫ মিনিট রেখে গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে পারেন। আবার জলপাই বা নারিকেল তেলের সঙ্গে একটু লবণ দিয়ে স্ক্রাবও করে নিতে পারেন। এতে বেশি সময় ঠোঁট মোলায়েম ও কোমল থাকবে।

ঠোঁটে লিপস্টিক দিতে কে না পছন্দ করেন- সেটি হোক হালকা কিংবা গাঢ়। তবে শীতকালে স্বাভাবিকভাবেই এমন মেকআপ বেছে নিতে হয় যাতে দিনের শেষে তা ছোপ ছোপ বা কৃত্রিম না দেখায়। মেকআপ যাতে শীতকালের পক্ষে উপযুক্ত হয়, এ জন্য সেরা উপায় হলো নিজের হাতে লিপস্টিক আর ফাউন্ডেশনের টেক্সচার যাচাই করে নেওয়া- যাতে তা শীতকালীন ত্বকের রুক্ষতা ও শুষ্কতার মোকাবিলা করতে পারে। কী ধরনের লিপস্টিক টেক্সচার শীতের মৌসুমে সবচেয়ে উপযোগী আর কীভাবেই বা তা ব্যবহার করবেন, তা জেনে নিন-

ম্যাট লিপস্টিক : এটি যে কোনো পোশাক বা সাজের সঙ্গে সুন্দর মানিয়ে যায়। তবে ঠাণ্ডায় তা টেনে ফেটে যায় খুব জলদি, বিশেষ ক্ষেত্রে লিকুয়েড ম্যাট লিপস্টিকে। তাই এটি দিয়ে সাজার আগে ঠোঁটে হালকা করে পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করুন। এতে ঠোঁট আর্দ্র থাকবে। এর ওপর লিকুয়েড ম্যাট লিপস্টিক দিয়ে প্রাইমারের প্রলেপ দিন। তা হলে লিপস্টিক দীর্ঘস্থায়ী ও ঠোঁট যত্নে থাকবে।

গ্লসি লিপস্টিক : এটি পার্টি লুক বা একটু হেভি লুকে মানিয়ে যায়। এ জন্য অনেকেই লাল, খয়েরি, মেজেন্ডা রঙগুলো বেঁছে নেন। গ্লসি লিপস্টিকগুলো বেশ সময় ধরে ঠোঁটে থাকে। তবে অনেকের ঠোঁটে তা কালো হয়ে আসে। তাই গ্লসি লিপস্টিক দেওয়ার আগে ঠোঁটে হালকা ফাউন্ডেশন দিন। এ ছাড়া গ্লসি লিপস্টিক কেনার আগে আর্গান অয়েল যুক্ত গ্লস কিনুন। এটি ঠোঁটের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে।

স্যাটিন লিপস্টিক টেক্সচার : এটি খুব সাধারণ ও শীতের জন্য বেশ উপযোগী। এতে ক্রিমের মতো টেক্সচার হওয়ায় শীতের জন্য এটি বেশ ভালো। যারা রেগুলার লিপস্টিক দিতে পছন্দ করেন, তারা হালকার মধ্যে স্যাটিন লিপস্টিক বেঁছে নিতে পারেন। এ জন্য ব্র্যান্ডেড কিছু এনরিচ স্যাটিন লিপ কালার রয়েছে।

সব সময় পোশাক ও সাজের সঙ্গে লিপস্টিক বেছে নিন। শীতের সময় বেশ বিয়ের উৎসব হয়ে থাকে। তাই পার্টি মেকাআপের সঙ্গে গ্লসি লিপস্টিক দিতে পারেন। অনেকে ন্যুড মেকআপ নিয়ে থাকেন। এর সঙ্গে ম্যাট হালকা খয়েরি বা গোলাপি ন্যুড কালার দিতে পারেন। অন্যদিকে ওয়েস্টার্ন পোশাকের সঙ্গে হালকা স্যাটিন লিপস্টিক বা হালকা রঙের গ্লস দিতে পারেন। অফিস বা কামিজের সঙ্গে মিলিয়ে রঙ বেছে যে কোনো লিপস্টিক দিতে পারেন। সবকিছুর সঙ্গে খেয়াল রাখুন সেটি যেন বেমানান না হয়। হালকা পোশাকের সঙ্গে উজ্জ্বল লিপস্টিক না দেওয়াই ভালো। ত্বক অনুযায়ী ঠোঁটের যত্ন নিন।

শীতের ছোঁয়া শুধু প্রকৃতিতে নয়, ছড়িয়ে পড়ে ত্বকেও। শীতের বাতাসে ত্বক হয়ে ওঠে রুক্ষ ও শুষ্ক। এর সঙ্গে কোমল ঠোঁটও হয়ে পড়ে নিষ্প্রাণ।

তাই এ শীতে চাই ঠোঁটেরও বাড়তি যত্ন। সঙ্গে রইল ট্রেন্ডি লিপকালারের পরামর্শও।

বিস্তারিত লিখেছেন ফাইকা হোসেন

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com