শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:০৯ অপরাহ্ন

জিতল ম্যান ইউ, রেকর্ড অব্যাহত রোনালদোর

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২১
  • ১০ বার

গত কয়েকটি দিন ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের জন্য মোটেই ভালো কাটেনি। ওয়াটফোর্ডের কাছে হার, কোচের চাকরি যাওয়া, সব মিলিয়ে চূড়ান্ত অস্থিরতায় কেটেছে গত ৭২ ঘন্টা। তবে অস্থায়ী কোচ মাইকেল ক্যারিকের অধীনে স্পেনে পাড়ি দেয়া ক্রিশ্চিয়ানো রোনালরারা জানতেন সব ঠিকঠাক চললে ভিলারিয়ালের বিরুদ্ধে ড্র করলেই তারা পরবর্তী পর্বে চলে যাবেন। মঙ্গলবার রোনালদো ও জেডন স্যাঞ্চোর গোলে ২-০ জিতে সেটাই করেন তারা।

ম্যাচের প্রথমার্ধ খানিকটা ফ্যাকাশেই ছিল। এদিন ব্রুনো ফার্নান্ডেজকে বেঞ্চে বসিয়ে ডনি ভ্যান ডিবিককে সুযোগ দিয়েছিলেন ক্যারিক। তবে ম্যানেজারের সিদ্ধান্তকে সঠিক প্রমাণ করতে চূড়ান্তভাবে ব্যর্থ হলেন ডাচ তারকা। বল দখলে রেড ডেভিলসদের থেকে এগিয়ে থাকা ভিলারিয়ালের হয়ে মোই গোমেজ, ইয়ারেমি পিনোরা ভালো খেললেও খুব বেশি গোলের সুযোগ তৈরি করতে ব্যর্থ হন তারা। প্রথমার্ধ গোলশূন্য শেষ হওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুটাও ম্যাড়ম্যাড়ে হয়।

তবে ধীরে ধীরে সুযোগ তৈরি করতে থাকে ভিলারিয়াল। ইউনাইটেডের বাঁ-দিক থেকে ডানজুমা বেশ কয়েকবার ডিফেন্স ভেদ করে বক্সে ঢুকে পড়লেও ফাইনাল পাস দিতে ব্যর্থ হন। ম্যানুয়েল ট্রিগেইপরোসের শট অনবদ্যভাবে ডেভিড দে হেয়া রুখে দেন। গোটা ম্য়াচেই বেশ কয়েকটি ভালো সেভ করেন ইউনাইটেড গোলরক্ষক। তবে ধীরে ধীরে ভিলারিয়ালের খেলা স্লো করে ড্রয়ের প্রয়াশ শুরু করলেই ইউনাইটেড নিজেদের ঝাঁঝ বাড়ায়। প্রায় ম্যাচের ঘন্টাখানেক স্প্যানিশ দলকে প্রেস না করলেও অল্প অল্প করে প্রেসিং শুরু করাতেই ভুল ভ্রান্তি শুরু হয় উনাই এমরির দলের।

ভিলারিয়াল গোলরক্ষক রুলির এক ভুল পাস থেকে বল চলে আসে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর কাছে। সুন্দর চিপ শটে পর্তুগিজ মহাতারকা গোল করে নিজের প্রতিটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রতিটি ম্যাচে নিজের গোল করার রেকর্ড বজায় রাখলেন। ৭৮ মিনিটে রোনালদোর গোলের পর ৯০ মিনিটে সাবস্টিটিউট হিসেবে নামা ব্রুনো ফার্নান্ডেজ এবং মার্কাস রাশফোর্ডের সাথে মিলে রোনালদো এক ভালো পাস দেন স্যাঞ্চোকে। গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন তিনি।

অপরদিকে, গ্রুপের অন্য ম্যাচে আটালান্টা ও ইয়ং বয়েজ ড্র করলেই ইউনাইটেড পরের রাউন্ডে পৌঁছে যেত। এক টানটান ম্যাচের পর ৩-৩ গোলে ড্র করে নিজেদের কোয়ালিফাই করার সুযোগ বেশ কঠিন করে ফেলল আটালান্টা। ম্যাচের ১০ মিনিটে ডুভান জাপাটা ইতালির ক্লাবকে এগিয়ে দেন। ৩৯ মিনিটে ইয়ং বয়েজ ম্যাচে ফিরলেও দ্বিতীয়ার্ধের ৫১ মিনিটে প্যালামিনোর গোলের পর বেশ সুবিধাজনক জায়গায়ই লাগছিল আটালান্টাকে। তবে চার মিনিটের মধ্যে যথাক্রমে সিয়েরো ও হেফতির দুই গোল ম্যাচের রঙ সম্পূর্ণভাবে বদলে দেয়। ৮৭ মিনিটে লুইস মুরিয়েল গোল করে রোমাঞ্চকর ম্যাচ থেকে আটালান্টার তিন পয়েন্ট নিয়ে ফেরার আশা জাগালেও তা আশাই থেকে যায়।

গ্রুপ এফ থেকে আরেক দল হিসেবে কে পরবর্তী পর্বে যাবে, তা নিয়ে ছয় পয়েন্টে থাকা আটালান্টা ও সাত পয়েন্টে থাকে ভিলারিয়ালের মধ্যে লড়াই। আটালান্টার ঘরের মাঠে ভিলারিয়াল ড্র করলেই পৌঁছে যাবে পরের রাউন্ডে। তবে ইতালিয়ান ক্লাব নিজেদের দিনে যে কাউকে বিধ্বস্ত করতে সক্ষম। তাই এক টানটান ম্যাচ হতে চলেছে। রোনালদোদের ইউনাইটেড অবশ্য ১০ পয়েন্ট নিয়ে কোয়ালিফাই করার পর ঘরের মাঠে ইয়ং বয়েজের বিরুদ্ধে নিয়মরক্ষার ম্যাচেই নামবে।
সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com