মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন

সেনাবাহিনীর সঙ্গে সন্ত্রাসীদের গোলাগুলি, এক সেনাসদস্য ও তিন সন্ত্রাসী নিহত

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ৩৩ বার

বান্দরবানের রুমায় সেনাবাহিনী ও সন্ত্রাসীদের গোলাগুলিতে এক সেনা কর্মকর্তাসহ জেএসএস (সন্তু) দলের তিন সদস্য নিহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার রাত পৌনে ১১টার সময় রুমার বথি পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আজ বৃহস্পতিবার আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) পক্ষ থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

জানা গেছে, বুধবার রাতে জোন (২৮ বীর) এর রাইক্ষিয়াংলেক আর্মি ক্যাম্পের সেনা টহলদলকে লক্ষ্য করে জেএসএস মূল দলের সদস্যরা গুলি চালায়। এ সময় সেনা সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালালে এক সেনা কর্মকর্তা ও জেএসএস দলের তিনজন সদস্য মারা যান। এ ঘটনায় আহত এক সেনা সদস্যকে চট্টগ্রাম সিএমএইচে পাঠানো হয়েছে।

নিহত সেনা কর্মকর্তার নাম মো. হাবিবুর রহমান। তিনি রুমা জোন (২৮) বীর রাইক্ষিয়াংলেক আর্মি ক্যাম্পের সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার। আর আহত সেনার নাম মো. ফিরোজ। তিনি একই ক্যাম্পের সেনা সদস্য। তবে জেএসএস (সন্তু) দলের নিহত সদস্যদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

একটি এসএমজি, তিনটি দেশীয় অস্ত্র, ২৮০ রাউন্ড গুলি, সন্ত্রাসীদের ব্যবহৃত পোশাকসহ নানা সরঞ্জাম

স্থানীয়রা জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় ২৮ বীরের একটি বিশেষ টহল দল রাইক্ষিয়াংলেক আর্মি ক্যাম্প থেকে পাখই পাড়ায় গেলে সেখানে জানতে পারে বথিপাড়া এলাকার আস্তানায় সন্তু বাহিনীর জেএসএস দলের সদস্যরা অবস্থান করছে। এমন খবর পেয়ে সেনা সদস্যরা সেখানে অভিযানে গেলে সন্ত্রাসীরা সেনা টহল দলকে উদ্দেশ্য করে অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় টহল দলের নেতৃত্বে থাকা সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার হাবিবুর রহমানের মাথায় গুলি লাগে এবং সেনা সদস্য ফিরোজের পায়ে গুলি লাগে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ওয়ারেন্ট অফিসার হাবিবুর রহমান মারা যায়।

পরে সেনা সদস্যরা পাল্টা গুলি ছুড়লে জেএসএস এর তিন সন্ত্রাসী মারা যায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে একটি এসএমজি, তিনটি দেশীয় অস্ত্র, ২৮০ রাউন্ড গুলি, সন্ত্রাসীদের ব্যবহৃত পোশাকসহ নানা সরঞ্জাম।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com