মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ১০:২২ পূর্বাহ্ন

ঢাকার ২ সিটি নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরু

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৮৮ বার

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা শুরু হয়েছে। শুক্রবার দলীয় প্রতীক পাওয়ার পর থেকেই প্রার্থীরা প্রচারণা শুরু করেন। উত্তর সিটিতে উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টর থেকে বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও ৪ নম্বর সেক্টর থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম প্রচারণা শুরু করেন। আর দক্ষিণে বিএনপির প্রার্থী ইশরাক হোসেন জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম থেকে এবং আওয়ামী লীগের প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ডেমরা থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। এছাড়া জুমার নামাজ শেষে মসজিদে মসজিদে প্রার্থীদের প্রচারপত্র বিলি করতে দেখা যায়।

আগামী ৩০ জানুয়ারি ভোট অনুষ্ঠিত হবে। এর আগে ২৮ জানুয়ারি রাত ১২টা পর্যন্ত প্রচারণা চালাতে পারবেন প্রার্থীরা।

শুক্রবার সকালে রিটানিং কর্মকর্তারা প্রার্থীদের দলীয় প্রতীক বরাদ্দ করেন। এবার দলীয়ভাবে নির্বাচন হওয়ায় বিএনপির প্রার্থীরা ধানের শীষ এবং আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। এছাড়া জাতীয় পার্টি লাঙ্গল, ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থীরা হাতপাখা প্রতীক পেয়েছেন।

দক্ষিণ সিটিতে মোট সাতজন মেয়র প্রার্থী রয়েছে। এরা হলেন, আওয়ামী লীগের শেখ ফজলে নূর তাপস (নৌকা), বিএনপির ইশরাক হোসেন (ধানের শীষ), জাতীয় পার্টির হাজী মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন মিলন (লাঙ্গল), ইসলামী আন্দোলনের আবদুর রহমান (হাতপাখা), ন্যাশনাল পিপলস্ পার্টির (এনপিপি) বাহরানে সুলতান বাহার (আম), বাংলাদেশ কংগ্রেসের আকতার-উজ্জামান ওরফে আয়াতুল্লাহ (ডাব) এবং গণফ্রন্টের আব্দুস সামাদ সুজন (মাছ)।

ঢাকা উত্তরের মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ছাড়াও কমিউনিস্ট পার্টি মনোনীত ডা: সাজেদুল হক রুবেল কাস্তে মার্কা, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের শাহিন খান বাঘ প্রতীক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের শেখ মোহাম্মদ ফজলে বারী মাসুদ হাতপাখা, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আনিসুল হক দুলাল আম প্রতীক পেয়েছেন।

প্রতীক বরাদ্দের অনুষ্ঠানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচনের রির্টানিং কর্মকর্তা আবদুল বাতেন বলেন, প্রতীক বরাদ্দের মধ্য দিয়ে প্রার্থীরা এখন আইন মেনে প্রচারণা চালাতে পারবেন। দুপুর দুইটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত মাইকিং করে প্রচারণা চালানো যাবে। এসএসসি পরীক্ষার কারণে মাইকের শব্দ নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। যাতে পরীক্ষার্থীদের পড়াশোনায় বিঘœ না ঘটে। একই সাথে মাইকের ব্যবহারের জন্য অনুমতি নিতে হবে। অনুমতি না থাকলে মাইক জব্দ করা যাবে।

তিনি বলেন, প্রার্থীরা নির্বাচন কমিশনের অনুমতি নিয়ে ক্যাম্প স্থাপন করতে পারবেন। সেখানে শুধু নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে পারবেন। কোনো ধরনের মিছিল, শো-ডাউন, বড় ধরনের জনসভা ও তোরণ নির্মাণ করা যাবে না। তবে ঘরোয়া বৈঠকে প্রার্থীরা অংশ নিতে পারবেন।

তিনি আরো বলেন, অনেক প্রার্থীর পোস্টার লাগানো আছে বলে অভিযোগ এসেছে। যেসব প্রার্থীর পোস্টার আছে তাদের বিষয়টি তদারকি করতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে ইতোমধ্যেই নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ডিএনসিসি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো: আবুল কাসেম বলেন, প্রার্থীরা যেন কোনোমতেই আচরণবিধি লঙ্ঘন না করে সেই বিষয়ে আমি অনুরোধ করছি। কোনো প্রার্থী লঙ্ঘন করলে তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে। নির্বাচন হলো একটি উৎসব। এই উৎসবকে আমরা কোনোক্রমেই সংঘর্ষে রূপ নিতে দেবো না। রাস্তাঘাট বন্ধ করে কোনো জনসভা করতে দেয়া হবে না। এসময় প্রত্যেক মেয়র প্রার্থীকে একটি করে আচরণবিধি দেয়া হয় এবং প্রার্থীদের আচরণবিধি মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়। সেই সাথে কোনো প্রার্থী রঙিন পোস্টার লাগাতে পারবেন না বলেও জানানো হয়।

বায়তুল মোকাররম থেকে ইশরাকের প্রচারণা শুরু
দক্ষিণ সিটিতে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম থেকে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। এ সময় তারা সাথে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, সাবেক এমপি সালাহ উদ্দিন আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, ইমরান সালেহ প্রিন্স, সহ-সাংগঠনিক আব্দুস সালাম আজাদ, শহীদুল ইসলাম বাবুলসহ দলীয় নেতাকর্মীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। পরে দলীয় নেতাকর্মীদের একটি মিছিল বায়তুল মোকাররম থেকে শুরু করে পুরানা পল্টন মোড় হয়ে দৈনিক বাংলা মোড়ের দিকে যায়। এসময় তারা লিফলেট বিতরণ করেন।

এর আগে সকাল ১০টায় দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ধানের শীষ প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর ইশরাক হোসেন জুরাইনে তার বাবা সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার কবর জিয়ারত করেন।

ডেমরা থেকে তাপসের নির্বাচনী প্রচারণা শুরু
ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়রপ্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ডেমরা থেকে আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। সকাল পৌনে ১১টায় দক্ষিণের ৭০ নম্বর ওয়ার্ড ডেমরা আমুলিয়া মডেল টাউন, মেহেন্দিপুর বাজার, মীরবাগ এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালান তাপস। এসময় তার সাথে ছিলেন আওয়ামী লীগ এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীসহ স্থানীয়রা।

উত্তরা থেকে তাবিথের প্রচারণা শুরু
রাজধানীর উত্তরা ৭ নম্বর সেক্টরের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে জুমার নামাজ শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। এ সময় তার সাথে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী, যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরব, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা: মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

৪ নম্বর সেক্টর থেকে আতিকের প্রচারণা শুরু
রাজধানীর উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টরের ৮ নম্বর রোডের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সামনে থেকে ঢাকা উত্তরে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো: আতিকুল ইসলাম গণসংযোগ শুরু করেন। এ সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2019 WeeklyBangladeshNY.Net
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com